মিউচুয়াল ফান্ড বনাম শেয়ার: এদের মধ্যে পার্থক্য কি?

মিউচুয়াল ফান্ড বনাম শেয়ার: এদের মধ্যে পার্থক্য কি?
ক্যালকুলেটর

মিউচুয়াল ফান্ডস কি একদম ঠিক?

আমাদের রাতের খাবারের সবজি কোথা থেকে আসে? আপনি কি আপনার বাগানে সবজি চাষ করেন, নাকি আপনার বাড়ির কাছের বাজার/সুপারমার্কেট থেকে আপনার প্রয়োজনমত সবজি কেনেন? নিজের সবজি নিজে চাষ করার মত স্বাস্থ্যকর খাদ্য আর কিছুই নেই, কিন্তু বীজ বাছাই, জমিতে সার ও জল দেওয়া, কীটপতঙ্গের হাত থেকে রক্ষা করা ইত্যাদি কাজে খাটনি প্রচুর। দ্বিতীয় উপায়টি বেছে নিলে আপনি কম খাটনিতে নানা রকমের সবজির থেকে বেছে নিতে পারবেন।

একই ভাবে, আপনি ভালো কোম্পানিগুলির শেয়ারে সরাসরি বিনিয়োগ করতে পারেন অথবা মিউচুয়াল ফান্ডের মাধ্যমে এগুলিতে বিনিয়োগ করতে পারেন। সম্পদ সৃষ্টি করার জন্য কোম্পানিগুলির স্টক কেনা যায় যারা আমাদের টাকা ব্যবহার করে তাদের ব্যবসা বৃদ্ধি করতে, এবং আমাদের জন্য মূল্য সৃষ্টি করে।

সরাসরি শেয়ারে বিনিয়োগ করার ব্যাপারটিতে তুলনামূলক ভাবে উচ্চ ঝুঁকি জড়িত আছে। আপনাকে কোম্পানি ও সেক্টরের সম্পর্কে গবেষণা করে তবে স্টক বাছাই করতে হবে। স্টক এক্সচেঞ্জের বিশাল তালিকায় হাজার হাজার কোম্পানির মধ্যে থেকে মাত্র কয়েকটিকে বেছে নেওয়ার কাজটি পাহাড়প্রমান। সেই কাজটি সম্পূর্ণ হলে, আপনাকে প্রতিটি স্টকের পারফর্ম্যান্সের দিকে নজর রাখতে হবে।

মিউচুয়াল ফান্ডে বিশেষজ্ঞ ফান্ড ম্যানেজাররা স্টক বাছাইয়ের কাজটি করেন। আপনাকে ফান্ডটির প্রতিটি স্টকের বদলে কেবল সামগ্রিকভাবে ফান্ডটির পারফর্ম্যান্সের প্রতি নজর রাখতে হবে। এরা বিনিয়োগের নমনীয়তাও প্রদান করে যা স্টকে উপলব্ধ নয়, যার মধ্যে রয়েছে গ্রোথ/ডিভিডেন্ড বিকল্প, টপ-আপ, সিস্টেম্যাটিক উইথড্রল/ট্রান্সফার, ইত্যাদি, এবং এছাড়া SIP এর মাধ্যমে নিয়মিত অল্প পরিমাণ বিনিয়োগ করার মাধ্যমে ওঠানামা সংক্রান্ত সমস্যাটি এড়াতেও সহায়তা করে।

286
আমি বিনিয়োগ করতে প্রস্তুত