একটি মিউচুয়াল ফান্ডে একজনকে কতদিন পর্যন্ত বিনিয়োগ করে থাকতে হয়?

Video
ক্যালকুলেটর

মিউচুয়াল ফান্ডস কি একদম ঠিক?

একটি বিনিয়োগের রাস্তা বেছে নেওয়ার আগে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিবেচনার বিষয়টি হল সম্ভাব্য “টাইম হরাইজোন বা সময়সীমা”, অর্থাৎ দিন, মাস ও বছরের ভিত্তিতে যে সময়কালের জন্য একজন বিনিয়োগকারীকে একটি বিনিয়োগের মধ্যে থাকতে হবে।

কিন্তু এটি কেন এতো গুরুত্বপূর্ণ?

সমস্ত বিনিয়োগগুলির আদর্শগতভাবে একটি আর্থিক বা বিনিয়োগ প্ল্যানের ভিত্তিতে ফলাফল প্রদান করা উচিৎ। এই প্ল্যানগুলি সাধারণত নির্দেশ করে আপনার আর্থিক লক্ষ্য পূরণ হতে কতো সময় লাগবে।

ধরুন একজন বিনিয়োগকারী যিনি একটি রিয়েল এস্টেট লেনদেনে ₹50 লাখ টাকা পেয়েছেন। তিনি সেই টাকা দিয়ে কী করা যায় তা নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে বিনিয়োগের একটি নিরাপদ উপায় খুঁজছেন। এ ক্ষেত্রে একটি আদর্শ স্কিম হতে পারে লিক্যুইড ফান্ড, যেটি সাধারণত পুঁজির নিরাপত্তার উচ্চ সম্ভাবনাসহ লিক্যুইডিটি প্রদান করার কথা মাথায় রেখে তৈরি করা হয়েছে। তিনি যখন চাইবেন তখনই রিডিম করতে পারবেন।

তাই, কতটা সময় ধরে বিনিয়োগ করে থাকা উচিৎ তা সম্পূর্ণরূপে নির্ভর করে বিনিয়োগের লক্ষ্যের উপরে। বিনিয়োগকারীদের তাদের পরামর্শদাতার সঙ্গে সময়ে সময়ে বিনিয়োগের স্থিতি ও অগ্রগতি রিভিউ করা প্রয়োজন। এই রিভিউয়ের সময়, রিডিম, সুইচ, বিনিয়োগ বা ছেড়ে দেওয়ার সিদ্ধান্তগুলি সাধারণত নেওয়া হয়।

আমি বিনিয়োগ করতে প্রস্তুত