কোনও ইকুইটি ফান্ডে বিনিয়োগ করার পূর্বে কি কি তথ্য ও ঝুঁকির স্থিতিমাপ বিবেচনা করা উচিৎ?

কোনও ইকুইটি ফান্ডে বিনিয়োগ করার পূর্বে কি কি তথ্য ও ঝুঁকির স্থিতিমাপ বিবেচনা করা উচিৎ?
ক্যালকুলেটর

মিউচুয়াল ফান্ডস কি একদম ঠিক?

আপনার পোর্টফোলিওর জন্য কোনও ইকুইটি ফান্ড বেছে নেওয়ার জন্য দুটি পর্যায় যুক্ত পদ্ধতিগত নির্বাচন প্রক্রিয়া প্রয়োজন হয়। প্রথমটি হল আপনার সম্বন্ধে, এবং যেটি শুরু হয় আপনার পোর্টফোলিওতে কোনও ইকুইটি মিউচুয়াল ফান্ডের প্রয়োজন বা আপনার আর্থিক লক্ষ্য এবং লক্ষ্যে পৌছানোর সময়সীমার শনাক্ত করণ, ইকুইটি ফান্ড বিনিয়োগের প্রকার ও আপনার ঝুঁকি সহনীয়তার মূল্যায়নের মাধ্যমে। এই তিনটি বিষয় স্থির করার পর, উপলব্ধগুলির মধ্যে উপযুক্ত ফান্ড নির্বাচন করা হল প্রক্রিয়ার পরবর্তী পদক্ষেপ, অর্থাৎ দ্বিতীয় পর্যায়।

এইভাবে দ্বিতীয় পর্যায়ের মধ্যে থাকে ফান্ডগুলি সম্বন্ধে নির্দিষ্ট তথ্য সন্ধান করা ও ঝুঁকির বিভিন্ন স্থিতিমাপ বিশ্লেষণ করার মাধ্যমে আরও গুণমানগত প্রক্রিয়া ব্যবহার করে সব উপযুক্ত ফান্ডগুলি সন্ধান করা। ফান্ড পোর্টফোলিও, সময়কাল (ভিন্টেজ), ফান্ড ম্যানেজার, ব্যয় অনুপাত, এবং সেটির বেঞ্চমার্ক ও সময়ের সঙ্গে সঙ্গে সেটির বেঞ্চমার্ক অনুসারে সেটি কেমন কর্মক্ষমতা দেখিয়েছে-সেইসব তথ্য আপনি সন্ধান করবেন।

যখন আপনি পোর্টফোলিও দেখবেন, তখন দেখুন সেটির সেক্টর বরাদ্দ ও স্টক বাছাইয়ের বিষয়ে কতটা বৈচিত্র্যপূর্ণ লাগছে। ফান্ডের প্রথম 10টি সেক্টর ও স্টক ধারণ থেকে এটি পরিমাপ করা যাবে। যখন আপনি সময়কাল দেখবেন, তখন ধারণা করতে পারবেন যে, ফান্ডটি কতগুলি আর্থিক চক্র অতিক্রম করেছে। ঊর্ধ্বমুখী মার্কেটে (বুল রান) অধিকাংশ ফান্ড ভাল ফল দেয়, কিন্তু ঊর্ধ্বমুখী ও নিম্নমুখী মার্কেটের (বুল অ্যান্ড বিয়ার ফেজ) সম্পূর্ণ চক্রের মধ্যে ফান্ড কেমন কর্মক্ষমতা দেখিয়েছে, সেটি পোর্টফোলিওর স্থিতিস্থাপকতা নির্দেশ করে। ফান্ডের সময়কালের সঙ্গে ফান্ড ম্যানেজারের ট্র্যাক রেকর্ড ভীষণভাবে জড়িত থাকে। ফান্ড ম্যানেজারের ট্র্যাক রেকর্ড সম্বন্ধে আরও ভালভাবে জানার জন্য আপনি তাঁর ব্যবস্থিত অন্যান্য ফান্ডগুলি দেখতে পারেন।

চালনার ক্ষেত্রে ফান্ডটি কতটা ভালভাবে ব্যবস্থিত হয়েছে সেটির জন্য ব্যয় অনুপাত একটি গুরুত্বপূর্ণ নির্দেশক হয়, এটি ফান্ডের কর্মক্ষমতার থেকে পৃথক হয়। ব্যয় অনুপাত যত কম হবে, বিনিয়োগকারীর পক্ষে সেটি তত ভাল হবে।

এরপর, ইকুইটি ফান্ড ঝুঁকির মুখ্য নির্দেশকগুলি দেখুন, যেমন মান্য বিচ্যুতি (স্ট্যান্ডার্ড ডিভিয়েশন) ও বিটা। প্রথমটি থেকে রিটার্নে ফান্ডের অনিশ্চয়তা বা রিটার্নে প্রত্যাশিত ওঠা-নামা সম্বন্ধে আপনি ধারণা পাবেন। মান্য বিচ্যুতি বেশি হলে বোঝাবে যে, আপনি ফান্ডের রিটার্নে বেশি অনিশ্চয়তা আশা করতে পারেন, অর্থাৎ রিটার্নটি ফান্ডের গড় প্রত্যাশিত রিটার্ন থেকে সম্ভবত দুদিকেই (ভাল ও মন্দ) ওঠা-নামা করতে পারে। বিটা হল মার্কেটের চলনের প্রতি ফান্ডের সংবেদনশীলতার একটি নির্দেশক। বিটা >1 হলে বোঝাবে যে, ফান্ডের এনএভি মার্কেটের চলনের প্রতি বেশি সংবেদনশীল। সুতরাং, ঊর্ধ্বমুখী মার্কেটে ফান্ডটি মার্কেটের তুলনায় উপরে থাকবে এবং নিম্নমুখী মার্কেটে ফান্ডটি মার্কেটের তুলনায় নীচেও থাকবে। বিটা =1 হলে বোঝাবে যে, ফান্ডের এনএভি মার্কেটের চলনের সঙ্গে ঘনিষ্ঠভাবে স্থান পরিবর্তন করবে। কম ঝুঁকির ইকুইটি মিউচুয়াল ফান্ডে সাধারণত বিটা <1 থাকে।

আপনার পোর্টফোলিওর জন্য চূড়ান্ত নির্বাচন করার পূর্বে ফান্ডগুলি সম্বন্ধে তথ্য একত্রিত করতে ও সেগুলি বিশ্লেষণ করতে অর্থব্যবস্থার কোনও পরামর্শদাতার কাছ থেকে পরামর্শ নেওয়ার জন্য নিজের কিছু সময় খরচ করুন।

421
আমি বিনিয়োগ করতে প্রস্তুত